শিরোনাম

South east bank ad

অবৈধভাবে সীমান্তে না ঢুকতে এলাকাবাসীকে সচেতন করা হচ্ছে : বিজিবি মহাপরিচালক

 প্রকাশ: ৩১ মে ২০২১, ০৪:০১ অপরাহ্ন   |   বিজিবি প্রধান

অবৈধভাবে সীমান্তে না ঢুকতে এলাকাবাসীকে সচেতন করা হচ্ছে  : বিজিবি মহাপরিচালক

সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোঠায় আনতে কূটনৈতিক আলোচনা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, এ ছাড়া অবৈধভাবে সীমান্ত এলাকায় প্রবেশ না করতে সীমান্তবর্তী এলাকার জনগণকে সচেতন করার চেষ্টা চলছে। জনপ্রতিনিধিরা বিভিন্নভাবে তাঁদের সচেতন করার কাজ করছেন।

বিজিবি মহাপরিচালক আরও বলেন, সীমান্তবর্তী এলাকার জনগণকে অর্থনৈতিকভাবে এবং শিক্ষার মাধ্যমে উন্নত করে তুলতে হবে। এতে সীমান্ত হত্যা অনেকাংশে কমে যাবে।


বিজিবি সদস্যদের প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ ও শিক্ষার প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করেন মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম। তিনি বলেন, বর্তমানে সারা বিশ্ব প্রযুক্তিতে এগিয়ে গেছে। বিজিবিকে এগিয়ে নিতে হলে এদিকে মনোযোগ দিতে হবে। দেশের সীমানায় কিছু স্থান এখনো অরক্ষিত। সেখানে বর্ডার অবজারভেশন পোস্ট (বিওপি) স্থাপন করা গেলে সীমান্তে হত্যাসহ নানা অপরাধ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।

বিজিবি মহাপরিচালক আরও বলেন, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ১০০ জেলেকে নৌকা দেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে তাঁদের মাছ ধরার জাল দেওয়া হবে। দেশের জেলেরা দাদনের ফেরে নিঃস্ব হয়ে যান। দাদন থেকে মুক্ত হয়ে তাঁরা যাতে জীবিকা চালাতে পারেন, সে জন্য বিজিবির পক্ষ থেকে এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।



বৈশ্বিক করোনা মহামারিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে বিজিবি সদস্যদের আগামী দিনগুলোয় সরকারের অর্পিত যেকোনো দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট থাকতে আহ্বান জানান বিজিবি মহাপরিচালক। তিনি বিজিবি সদস্যদের দৃঢ় মনোবল নিয়ে সততা, নিষ্ঠা ও আত্মপ্রত্যয়ের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের জন্য আহ্বান জানান।


BBS cable ad