শিরোনাম

South east bank ad

নো-ম্যান্সল্যান্ডে মিলেছে দুই বাংলার সীমান্ত রক্ষীবাহিনী

 প্রকাশ: ২৭ মার্চ ২০২২, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন   |   বিজিবি

নো-ম্যান্সল্যান্ডে মিলেছে দুই বাংলার সীমান্ত রক্ষীবাহিনী
বেনাপোল প্রতিনিধি : 

স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে বেনাপোল-পেট্রাপোল নো-ম্যান্সল্যান্ডে দুই বাংলার সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর মিলন মেলা ও ‘জয়েন্ট রিট্রিট সিরিমনি’ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল শনিবার (২৬ মার্চ) বিকালে দুই দেশের জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হয় বিজিবি- বিএসএফের মিলন উৎসব ও ‘জয়েন্ট রিট্রিট সিরিমনি’ অনুষ্ঠান।

এ সময় বিজিবির পক্ষে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিজিবির দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের যশোর রিজিয়ন কমান্ডার উপ মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ওমর সাদি, খুলনা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মামুনুর রশিদ, যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল সায়েদ মিনহাজ সিদ্দিক। ভারতের বিএসএফের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, কলকাতা বিএসএফের ডিআইজি এন চাতুর ভেডি, ১৭৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার কর্নেল তারিনী কুমার। এছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ সর্বস্তরের জনগণ দর্শনার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। 

রিট্রিট সিরিমনি অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বিজিবির উপ মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওমর শাদী বলেন, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারত বিভিন্ন ভাবে বাংলাদেশকে সহযোগীতার হাত বাড়িয়েছিল। যুদ্ধে ভারতের অনেক বিএসএফ, সেনাবাহিনী প্রাণ হারিয়েছিল। বিজয় দিবসের এ দিনে আমরা তাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও আত্মার শান্তি কামনা করছি। আগামীতে দুই দেশের মধ্যে এ বন্ধুত্ব ও সৌহার্দ্য সর্ম্পক আরও বাড়বে। আমরা চাই রক্তের বিনিময়ে যে স্বাধীনতা আমরা অর্জন করেছি সেটি যে কোন মূল্যে রক্ষা করব বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বিজিবির এ কর্মকর্তা।

ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফের কলকাতার ডিআইজি এন চাতুর ভেডি বলেন, ২৬ মার্চ যেমন বাংলাদেশের জন্য গৌরবের তেমনি ভারতের জন্যও। বিজিবি-বিএসএফ এভাবে এক সাথে কাজ করে যাবে। ‘জয়েন্ট রিট্রিট সিরিমনি’তে বিজিবি ও বিএসফের মধ্যে যৌথ প্যারেড বন্ধুত্ব সর্ম্পক আরো বৃদ্ধি করেছে। আগামীতে এ সর্ম্পক আরো বাড়বে।

যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহেদ মিনহাজ সিদ্দিক বলেন, দু‘দেশের মধ্যে বন্ধুত্ব সম্পর্ক বৃদ্ধির লক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে যৌথ ‘জয়েন্ট রিট্রিট সিরিমনি’ (প্যারেড) অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

ভারত-বাংলাদেশের সীমান্তের নো-ম্যান্সল্যান্ডে জমকালো ‘জয়েন্ট রিট্রিট সিরিমনি’র মাধ্যমে আবারো বাজল ভ্রাতৃত্বের জয়গান। এ সময় বিজিবি-বিএসএফ সদস্যদের অংশগ্রহণে জমকালো সামরিক কলা কৌশলের দৃষ্টিনন্দন যৌথ প্যারেড অনুষ্ঠিত হয়। দু‘দেশের আমন্ত্রিত অতিথিসহ জনসাধারণ সীমান্তের শুন্যরেখায় আসতে থাকেন। তারা একে অন্যের সাথে কথা বলেছেন প্রাণ খুলে। উপভোগ করেছেন যৌথ প্যারেড। দেখেছেন দু‘দেশের জাতীয় পতাকা একসাথে নামানোর দৃশ্য। সবার উপস্থিতি মিলন মেলায় রুপ নেয়। অনুষ্ঠান শেষে বিএসএফ কর্মকর্তা ও সদস্যদের মধ্যে পুরস্কার তুলে দেয় বিজিবি। 

BBS cable ad

বিজিবি এর আরও খবর: